মধ্যস্বত্বভোগীদের হাতে প্রবাসীদের অর্থ, রেমিট্যান্স থেকে বঞ্চিত দেশ

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ আগস্ট ৬, ২০২২ | ৬:১৫
ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ আগস্ট ৬, ২০২২ | ৬:১৫
Link Copied!
রেমিট্যান্স বাড়াতে প্রবাসীদের ডলারের মূল্য এক লাফে বাড়লো প্রায় ৮ টাকা

প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সের অর্থ আটকে যাচ্ছে কিছু অসাধু মানি এক্সচেঞ্জ বা হুন্ডিবাজদের হাতে। ফলে সময়মতো দেশে আসছে না অর্থ। এতে দেশ বঞ্চিত হচ্ছে বৈদেশিক মুদ্রা থেকে। এ খাতে প্রায় ১৫০ কোটি ডলারের রেমিট্যান্স বিদেশে  পরে আছে। এগুলো দেশে আনার জন্য ব্যাংকগুলোকে নানান উদ্যোগ  নিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সে থাবা বসিয়েছে মধ্যস্বত্বভোগীরা। দেশি-বিদেশি কিছু এক্সচেঞ্জ হাউস প্রবাসীদের বৈদেশিক মুদ্রা অন্যত্র বিনিয়োগ করে মুনাফা নিচ্ছে।

প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী, রেমিট্যান্স এক্সচেঞ্জ হাউসে জমার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ওই দেশের ব্যাংকে নষ্ট্রো অ্যাকাউন্টে জমা করবে। এতে অর্থ জমা হলেই তা বাংলাদেশের সংশ্লিষ্ট ব্যাংক পেয়ে যাবে।

বিজ্ঞাপন

এরপর বাংলাদেশের ব্যাংক প্রবাসীর হিসাবে তা টাকায় স্থানান্তর করে। কিন্তু এক্সচেঞ্জ হাউসগুলো তা না করে, রেমিট্যান্সের অর্থ বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগ করে। এ খাতে প্রায় ১৫০ কোটি ডলারের রেমিট্যান্স বিদেশে আটকে রয়েছে।

অর্থমন্ত্রী বলেছেন,গত অর্থবছরে দেশে যে পরিমানের রেমিট্যান্সে এসেছে তার  ৪১ শতাংশই আসছে হুন্ডিতে। কিন্তু হুন্ডিতে আসা সেই রেমিট্যান্স থেকে বঞ্চিত হয়েছে দেশ।

এছাড়া বিদেশি এক্সচেঞ্জ হাউসের সঙ্গেও দেশের ব্যাংকগুলো রেমিট্যান্স পাঠানোর চুক্তি করে। এ সুযোগে বৈধ এক্সচেঞ্জ হাউজের পাশাপাশি গড়ে উঠে অনেক বেআইনি হাউস।

বিজ্ঞাপন

মোট রেমিট্যান্সের যুক্তরাষ্ট্র থেকে ১৬ শতাংশ, কুয়েত থেকে ৮ শতাংশ, ওমান থেকে ৪ শতাংশ, মালয়েশিয়া থেকে ৫ শতাংশ, সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে ৯ শতাংশ, অন্যান্য দেশ থেকে ২৭ শতাংশ আসে।

ওইসব দেশেও হুন্ডি চক্র সক্রিয়। বিশেষ করে মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশি হুন্ডিবাজদের তৎপরা বেশি। যে কারণে মালয়েশিয়া থেকে এখন রেমিট্যান্স বেশি কমেছে।

 

কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্র জানায়, বিদেশে যেখানে বাংলাদেশিরা রয়েছে সেখানের আনাচে-কানাচে বেআইনিভাবে অনেক এক্সচেঞ্জ হাউস গড়ে উঠেছে। সেগুলোর মাধ্যমে হুন্ডিতে অনেকেই রেমিট্যান্স পাঠাচ্ছেন। এদের অনেকেই প্রতারিত হচ্ছেন

আরো পড়ুন:  মাস্ক না পরলে জেল জরিমানা, জানালেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক

শীর্ষ সংবাদ:
কাতারের পোশাক নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করে ক্ষমা চাইলেন ধারাভাষ্যকার ইসলামি গানের মডেল হলেন মিশা সওদাগর মধ্যপ্রাচ্যের প্রথম দেশ হিসেবে কাল চাঁদে যাচ্ছে আমিরাত ঢাকায় বসছে আন্তর্জাতিক পর্যটন মেলা, অংশ নেবে ওমান হেলিকপ্টারে করে প্রবাসীকে হাসপাতালে নিল ওমানের বিমান বাহিনী গুজবে কান না দিতে প্রবাসীদের আহ্বান জানালো দূতাবাস ওয়ার্ক পারমিট নবায়নে নতুন নির্দেশনা জারি করলো ওমান নিখোঁজ হওয়ার ২ মাস পর লাশ উদ্ধার করেছে ওমান পুলিশ যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বগুড়ায় বিমানের জরুরি অবতরণ ‘চুরির অভিযোগে দুই হাত কেটে ফেলবে সৌদি পুলিশ, দ্রুত টাকা পাঠাও’ দুবাইয়ে হচ্ছে ১০২ তলা ‘শহর’ মরু এলাকায় তুষারপাত ঘটিয়ে তাক লাগিয়ে দিলেন প্রিন্স সালমান বিকাশ-রকেটে সরাসরি রেমিট্যান্স আনতে বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন ওমানের মাস্কাট বিমানবন্দরে গাঁজাসহ দুই প্রবাসী গ্রেপ্তার বাড়ি লিখে না দেওয়ায় স্বামীকে কুপিয়ে হত্যা করল স্ত্রী ওমান উপসাগরে ট্যাংকারে হামলা: অভিযোগ অস্বীকার ইরানের খেলা নিয়ে তর্ক, আর্জেন্টিনার সমর্থককে খুন চোরাচালানের মাধ্যমে প্রতিদিন ২০০ কোটির সোনা আসছে দেশে কাতার রাজপরিবারের সম্পদ দেখে অবাক বিশ্ব মরুর সৌন্দর্যে মুগ্ধ পর্যটকরা, আরব অর্থনীতিতে নতুন সম্ভাবনা